Post Updated at 12 Dec, 2023 – 3:17 PM

পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের মূল সময়সূচী

দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের নির্দিষ্ট সময় রয়েছে। প্রতিটি নামাজ এই নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই আদায় করা ফরজ।

ফজরের নামাজের সময়

ফজর নামাজের সময় সুবহে সাদেক থেকে শুরু হয় এবং সূর্যোদয়ের পূর্ব পর্যন্ত এর সময় থাকে।

যুহরের নামাজের সময়

সূর্য যখন ঠিক মধ্য আকাশে থাকে তখন কোনো বস্তুর যে ছায়া থাকে সেটা হলো তার মূল ছায়া। এরপর সূর্য যখন পশ্চিম দিকে হেলতে শুরু করে তখন ছায়াও বড় হতে শুরু করে। আর তখনই জোহর নামাজের সময় শুরু হয়। ছায়া বড় হতে হতে যখন (মূল ছায়াটুকু বাদ দিয়ে) বস্তুর দ্বিগুণ হয়ে যাবে তখন যোহর নামাজের সময় শেষ হয়।

আসরের নামাজের সময়

জোহর নামাজের সময় যখন শেষ হয় তখনই আসর নামাজের সময় শুরু হয় এবং সূর্য ডুবে যাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত আসরের সময় থাকে।

মাগরিবের নামাজের সময়

যখন সূর্য ডুবে যায় তখনই মাগরিবের নামাজের সময় শুরু হয়। পশ্চিম আকাশে লাল বর্ণ শেষ হয়ে যাওয়া পর্যন্ত মাগরিব নামাজের সময় থাকে। এ সময়ের পরিমাণ সাধারণত সোয়া ঘণ্টা বা তার চেয়ে দুই-চার মিনিট কমবেশি হয়ে থাকে।

ইশার নামাজের সময়

মাগরিব নামাজের সময় যখন শেষ হয় তখন ইশার নামাজের সময় শুরু হয়। সুবহে সাদেক পর্যন্ত ইশার নামাজের সময় থাকে।

বিতিরের নামাজের সময়

ইশার ফরজ ও সুন্নতের পর থেকে বিতিরের নামাজের সময় শুরু হয়। সুবহে সাদেক অর্থাৎ ফজরের সময় শুরু হওয়া পর্যন্ত এর সময় থাকে।

একটি ভুল ধারণা

কেউ কেউ মনে করেন, জামাতের সঙ্গে নামাজ ছুটে গেলে নামাজের সময়ই শেষ হয়ে যায়। এ ধারণাবশত জামাতের সঙ্গে নামাজ আদায় করতে না পারলে তারা সেই নামাজটিই কাজা করে বসে। আবার কেউ কেউ মনে করে, প্রত্যেক নামাজের জামাতের জন্যে যে সময় নির্ধারণ করা হয়, সেটিই সে নামাজের মূল সময় এবং এর চেয়ে বিলম্বিত করা হয়তো জায়েজ হবে না। আসলে বিষয়টি এমন নয়। উপরে প্রত্যেক নামাজের জন্যে যে সময় উল্লেখ করা হয়েছে, তাই হচ্ছে নামাজের মূল সময়। এ সময়ের ভেতরে নামাজ আদায় করলেই হবে। কোনো কারণে কারও জামাত ছুটে গেলেই সে নামাজটি কাজা হয়ে যায় না। বরং জামাত ছুটে গেলেও সে নামাজটি উপরোক্ত সময়ের ভেতরে আদায় করে নিতে হবে। এমনিভাবে জামাত দাঁড়াতে যদি নির্ধারিত সময়ের চেয়ে সামান্য বিলম্ব হয়, তাহলেও এতে নামাজের কোনো সমস্যা হবে না।

পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের উত্তম সময়সূচী

ফজরের নামাজের উত্তম সময়

ফজর নামাজ দেরি করে পড়া উত্তম। চারপাশ যখন কিছুটা ফর্সা হয় সেটিই ফজর নামাজ পড়ার উত্তম সময়। তবে সূর্যোদয়ের এতটুকু আগে নামাজ শুরু করা উচিত, যেন কোনো কারণে নামাজ নষ্ট হয়ে গেলেও পুনরায় সুন্নত কেরাত দিয়ে নামাজ আদায় করা যায়।

জোহরের নামাজের উত্তম সময়

গরমের দিনে দুপুরের তাপ কিছুটা কমার পরই জোহর নামাজ পড়া উত্তম। আর শীতকাল কিংবা ঠাণ্ডা দিনে ওয়াক্তের শুরুর দিকে জোহর নামাজ পড়া উত্তম।

আসরের নামাজের উত্তম সময়

আসরের ওয়াক্ত শুরুর পর থেকে সূর্যের রং পরিবর্তন হয়ে যাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত আসর নামাজের উত্তম সময়। সূর্য হলুদ হয়ে যাওয়ার পর পর্যন্ত আসরের নামাজ দেরি করে পড়া মাকরুহ বা অপছন্দনীয়।

মাগরিবের নামাজের উত্তম সময়

মাগরিব নামাজ ওয়াক্তের শুরুর দিকে দ্রুত পড়ে নেয়া উত্তম। দেরি করা ঠিক নয়। আকাশ যদি মেঘলা থাকে এবং ঘড়ি দেখে নামাজের সময় নির্ধারণের কোনো ব্যবস্থা না থাকে, তাহলে অবশ্য মাগরিব নামাজ একটু দেরি করে পড়াই উত্তম।

ইশার নামাজের উত্তম সময়

নামাজের ওয়াক্ত শুরুর পর কিছুটা বিলম্বিত করে রাতের এক তৃতীয়াংশের কাছাকাছি সময়ে ইশার নামাজ পড়া উত্তম। আর ইশার নামাজ মধ্য রাতের পর পর্যন্ত দেরি করে পড়া মাকরুহ।

বিতিরের নামাজের উত্তম সময়

শেষ রাতে ঘুম থেকে উঠতে পারলে বিতির নামাজ শেষ রাতে পড়াই উত্তম। তবে যারা শেষ রাতে উঠতে পারে না তারা ইশার নামাজের পর ঘুমের আগেই বিতির পড়ে নেবে।

 

Comments
  1. প্লেস্টোর ছাড়া কিভাবে ইউজ করবো। বা এমন কোন সাইড আছে যে ইউজ করতে পারবো

    1. আমাদের Android App কেবল গুগল প্লে স্টোর থেকেই ইউজ করা যাবে

  2. আপনি যদি এমন কোনো মোবাইল সেট ব্যবহার করেন, যাতে প্লেস্টোর নেই। তাহলে অন্য কারো মোবাইলে যার ফোনে “মুসলিম ডে” এপ ইন্সটল করা আছে তার ফোন থেকে নিতে পারেন। “Shareit” app দিয়ে এপ্স শেয়ার করা যায়। সাধারনত চাইনিজ কিছু এন্ড্রেড ফোনে প্লেস্টোর চলে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

- আমি মুসলিমস ডে এর কমেন্টের নীতিমালার সাথে একমত হয়ে পোস্ট করছি

সাম্প্রতিক পোস্ট সমূহ
ক্যাটাগরি সমূহ
ট্যাগ সমূহ
error: অনুগ্রহ করে লেখাটি কপি করবেন না। লিংক শেয়ার করুন। ধন্যবাদ